মেনু নির্বাচন করুন

ভাষা ও সংস্কৃতি

প্রত্যেক জাতির নিজস্ব ভাষা ও সাংস্কৃতি রহিয়াছে। কিন্তু বঙ্গলতলী ইউনিয়নের জন জীবনে তেমন ভাষা ও সংস্কৃতির পার্থক্য তেমন পরিলক্ষিত হয়না।এখানে স্থায়ী আদিবাসী গোষ্টী চাকমা ও রাখাইন।উপজাতী অউপজাতীয়দের তুলনা করিলে চাকমাদের সংখ্যা  সব চাইতে বেশী।রাখাইনরা খুবই কম।তাহারা ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে বসবাস করিতেছে।আমাদের রাস্ট্রীয় ভাষা বাংলা হলেও কথ্য ভাষার মধ্যে চাকমা ভাষাতে উপজাতী ও অউপজাতীয়দের মধ্যে গলায় গলায় ভাব।অন্যান্য কোন উপজাতী এই ইউনিয়নে স্থায়ীভাবে বসবাস নেই। এই ইউনিয়নের অধিবাসীদের নিজ নিজ ধর্মীয় সংস্কৃতি থাকিলেও ধর্মীয় উৎসবে ও সংস্কৃতিতে মেলামেশা করতে দেখা যায়। এই ইউনিয়ন জনপদে চারটি ধর্ম বিদ্যমান।(১) মুসলিম (২)বৌদ্ধ (৩) খৃষ্টান (৪) প্রাচীন সনাতন হিন্দু ধর্ম।চাকমারা বৌদ্ধ ও খৃষ্টান ধর্মালম্বী।তবে খৃষ্টান ধর্মালম্বীর সংখ্যা খুবই কম। সামাজিক সাংস্কৃতিতেওউপজাতী ও অউপজাতীয়দের মেলা মেশা করতে দেখা যায়।এই ইউনিয়নে কিছু সংখ্যক বড়ুয়া সম্প্রদায়ের স্থায়ীভাবে বসবাস করিতেছে।তাদের ভাষা সংস্কৃতিও ভিন্নতর নহে।